আক্রান্ত

১,৫৪৫,৮০০

সুস্থ

১,৫০৪,৭০৯

মৃত্যু

২৭,২৭৭

  • জেলা সমূহের তথ্য
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২,৭১৪
  • বরগুনা ১,০০৮
  • বগুড়া ৯,২৪০
  • চুয়াডাঙ্গা ১,৬১৯
  • ঢাকা ১৫০,৬২৯
  • দিনাজপুর ৪,২৯৫
  • ফেনী ২,১৮০
  • গাইবান্ধা ১,৪০৩
  • গাজীপুর ৬,৬৯৪
  • হবিগঞ্জ ১,৯৩৪
  • যশোর ৪,৫৪২
  • ঝালকাঠি ৮০৪
  • ঝিনাইদহ ২,২৪৫
  • জয়পুরহাট ১,২৫০
  • কুষ্টিয়া ৩,৭০৭
  • লক্ষ্মীপুর ২,২৮৩
  • মাদারিপুর ১,৫৯৯
  • মাগুরা ১,০৩২
  • মানিকগঞ্জ ১,৭১৩
  • মেহেরপুর ৭৩৯
  • মুন্সিগঞ্জ ৪,২৫১
  • নওগাঁ ১,৪৯৯
  • নারায়ণগঞ্জ ৮,২৯০
  • নরসিংদী ২,৭০১
  • নাটোর ১,১৬২
  • চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৮১১
  • নীলফামারী ১,২৮০
  • পঞ্চগড় ৭৫৩
  • রাজবাড়ী ৩,৩৫২
  • রাঙামাটি ১,০৯৮
  • রংপুর ৩,৮০৩
  • শরিয়তপুর ১,৮৫৪
  • শেরপুর ৫৪২
  • সিরাজগঞ্জ ২,৪৮৯
  • সিলেট ৮,৮৩৭
  • বান্দরবান ৮৭১
  • কুমিল্লা ৮,৮০৩
  • নেত্রকোণা ৮১৭
  • ঠাকুরগাঁও ১,৪৪২
  • বাগেরহাট ১,০৩২
  • কিশোরগঞ্জ ৩,৩৪১
  • বরিশাল ৪,৫৭১
  • চট্টগ্রাম ২৮,১১২
  • ভোলা ৯২৬
  • চাঁদপুর ২,৬০০
  • কক্সবাজার ৫,৬০৮
  • ফরিদপুর ৭,৯৮১
  • গোপালগঞ্জ ২,৯২৯
  • জামালপুর ১,৭৫৩
  • খাগড়াছড়ি ৭৭৩
  • খুলনা ৭,০২৭
  • নড়াইল ১,৫১১
  • কুড়িগ্রাম ৯৮৭
  • মৌলভীবাজার ১,৮৫৪
  • লালমনিরহাট ৯৪২
  • ময়মনসিংহ ৪,২৭৮
  • নোয়াখালী ৫,৪৫৫
  • পাবনা ১,৫৪৪
  • টাঙ্গাইল ৩,৬০১
  • পটুয়াখালী ১,৬৬০
  • পিরোজপুর ১,১৪৪
  • সাতক্ষীরা ১,১৪৭
  • সুনামগঞ্জ ২,৪৯৫
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর | স্পন্সর - একতা হোস্ট

“জেনারেশন মিউট” যে কারণে মোবাইল সাইলেন্ট প্রবনতা বাড়ছে!

"জেনারেশন মিউট" যে কারণে মোবাইল সাইলেন্ট প্রবনতা বাড়ছে!tech kothon
অন্যদের সাথে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ad techkothonএকটা সময় ছিলো মানুষ নোকিয়া ১১১০ কিংবা ২৬০০ মডেলের ফোন গুলোর রিংটোন বাজিয়ে নিজে নিজে শুনতো অথবা অন্যরদের নজরে আশার জন্য সাউন্ড কমিয়ে বাড়িয়ে বিভিন্ন ভঙ্গি করত।কিন্তু কালের পরিক্রমায় তার বর্তমানে দেখা যায় না। মোবাইল ফোনগুলো দিন দিন যেমন স্মার্ট হচ্ছে মানুষগুলোও তার সাথে সাথেই অনেক আপডেট কিংবা স্মার্ট হচ্ছে। যদিও মোবাইল ফোনের স্মার্ট চিন্তা-ভাবনা গুলো মানুষের মাথা থেকেই আসে।

কিন্তু আমরা মানুষরা একটু অদ্ভুত নিজের কাছে একটা জিনিস থাকলে তা অন্যকে না দেখালে মনে শান্তি আসে না। যাই হোক, আজকের অ্যাটিকেল টি হচ্ছে মোবাইল ফোন সাইলেন্ট করে রাখার প্রবণতা বাড়ার কারণ নিয়ে। চলুন বিস্তারিত ভাবে একটু আলোচনা করি।

“জেনারেশন মিউট” যে কারণে মোবাইল সাইলেন্ট প্রবনতা বাড়ছে!

আমি আগেই বলেছি মানুষ দিন দিন অনেক আপডেট এবং স্মার্ট হয়ে যাচ্ছে নতুন রিংটোন পরিবর্তন করে বারবার শোনার দিন আরো ১০ বছর আগেই চলে গেছে।এখন মানুষের রিংটোনের আগ্রহ নেই বললে চলে।

৪ ভাগের ১ ভাগে নেমে এসেছে রিংটোন ডাওনলোডের হার। শুধু বাংলাদেশে নয় মোবাইল ফোন বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান সেন্সর টাওয়ারের অনুসন্ধানে দেখা যায় যুক্তরাজ্যে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীরা ২০১৬ সালে প্রায় ৪৬ লাখ অ্যাপলিকেশন ডাওনলোড করেছে কিন্তু তা ২০২০ সালে এসে ৩৭ লাখে নেমে এসেছে। ২০ শতাংশ মানুষ অ্যাপ্লিকেশন ডাওনলোড কমিয়ে দিয়েছে।
একটু লক্ষ করলে দেখা যায় বিশেষ করে তরুণরা বর্তমানে মোবাইল ফোনের সাইলেন্ট মোড রাখার প্রবণতা বেড়ে গেছে। আমি নিজেও ২০১৩/১৪ সাল থেকে মোবাইল ফোন ব্যবহার করছি কিন্তু আমার জানা মতে আমি আমার ফোন ৯৫% দিনই মোবাইল সাইলেন্ট ছিলো। আমার অনেক বন্ধু বা পরিচিত জনদের কাছে শুনি তারা নাকি মোবাইল ব্যবহার করে কিন্তু রিংটোন অপশনে কোন দিন দেখেই নি।techkothon ad

ফোন সব সময়ই সাইলেন্ট করে রাখেন। বয়স্কদের ফোন ছড়া বর্তমানে রিংটোন শোনাই যায় না। তরুণরা বেশির ভাগ সময় মোবাইল ফোন নিয়ে সময় অতিবাহিত করার ফলে কল অথবা ক্ষুদে বার্তা আশার সাথে সাথে দেখতে পাচ্ছে ও জেনে যাচ্ছে। এর ফলে রিংটোনের দরকারও হয় না। তাছাড়া বর্তমানে বাজারে অনেক স্মার্ট গেজেট পাওয়া যায় তার মধ্যে অন্যতম হল স্মার্টওয়াচ।

এটি সাধারনত স্মার্টফোনের সাথে সংযুক্ত থাকে যার ফলে নোটিফিকেশন এলেই হাতের কব্জিতেই ভাইব্রেশনে ডিভাইজটি কম্পন শুরু হয় যার ফলে সাথে সাথে রিংটোন ছাড়াই টের পেয়ে যায়। অতীতে যেমন রিংটোন শুনানো বা বাজানো একটা ফ্যাশন ছিলো বর্তমানে না বাজানোই ফ্যাশন।
অফকম” যুক্তরাজ্য ভিত্তিক একটি নিয়ন্ত্রক সংস্থা তাদের ২০১৭ সালের একটি রিপোর্ট অনুযায়ী ১৬-২৪ বছর বয়সের তরুনরা মোবাইলে কথা বলার থেকে বার্তা আদান -প্রদান করতে বেশি পছন্দ করে বলে জানায়। প্রতিবেদনে “জেনারেশন মিউট” বলে এই প্রজন্মকে আখ্যায়িত করে। বার্তা আদান-প্রদানকে ৩৬ শতাংশ তরুন যোগাযোগের স্বাচ্ছন্দ্য মাধ্যম মনে করে।latest tech news ad banner জেনারেশন মিউট
যার ফলে ফোন কলের গুরুত্ব কমছে বলে ধারনা করা হয়।ফোনে কথা বলাকে অনেকে বয়স্কদের কার্ম বলতেও শুনা যায় অনেক তরুনদের।
আমরা মানুষরা বর্তমানে নিরিবিলি পরিবেশকে বেশিই পচন্দ করে তাই তারা মোবাইল ফোন বেশিরভাগ সময় সাইলেন্ট করে রাখেন।

আজকের “জেনারেশন মিউট” যে কারণে মোবাইল সাইলেন্ট প্রবনতা বাড়ছে! অ্যাটিকেলটি এ পর্যন্ত।আশা করি, সবার ভালো লেগেছে, যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, নিরাপদে থাকুন।

5/5
অন্যদের সাথে শেয়ার করুন
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on email

প্রযুক্তির সকল আপডেট পেতে কানেক্টেড থাকুন টেক কথন এর সাথে!

টেক কথন
টেক কথন

সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির - টেক কথন এ আমি ৩ বছর যাবৎ
যুক্ত আছি। এখানে আপনি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করি।
আশা করি আমাদের ওয়েবসাইটে সাথেই থাকবেন। ধন্যবাদ

Home
ad techkothon

আপনার পন্য বা প্রতিষ্ঠানের

latest tech news ad bannerযেভাবে একজন সফল ফ্রিল্যান্সার হবেন
error: চোর কোথাকার! চুরি করে আর কত দিন?