ছাত্র জীবনে থেকে অনলাইনে আয় করার উপায়

অনলাইনে আয় করার উপায়

২০২১ সাল প্রায় শেষ ছাত্র-ছাত্রী কিংবা বেকার পড়াশোনার পাশাপাশি  বেকার বসে না থেকে ভাবছেন কিভাবে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করা যায় । এ ব্যাপারটা নিয়ে  একটু আলোচনা করা যাক। এই ব্যাপার গুলো নিয়ে ভাবতে গেলে আপনাদের সামনে অনেক লোভনীয় কিছু বিষয় চলে আসে আজকে এই আর্টিকেলটিতে আমি শেয়ার করব ২০২১ সালে কিভাবে ঘরে বসে কোন কোন বিষয় নিয়ে কাজ করে খুব সহজে আপনি অনলাইনে আয় করতে পারবেন।

আর্টিকেল এর শুরুতে আমি একটা কথাই বলতে চাই আমাদের দেশে ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে অথবা অনলাইনে আয় নিয়ে অনেক ভ্রান্ত ধারণা রয়েছে এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের প্রচারণার জন্য অনেক অনেক ভুল কিংবা কঠিন করে প্রচারণা করে থাকেন অনেক প্রতিষ্ঠান বলবে ফ্রিল্যান্সিং করতে হলো অথবা অনলাইনে আয় করতে হলে ইংরেজী না জানলেও চলবে কিন্তু এটি আসলে  ভুল ধারণা, দেখা যায় আমাদের দেশের মানুষ অথবা যারা পড়াশোনা করতেছেন তারা ইংলিশে একটু তুলনামূলক দুর্বল হাওয়ায় ফ্রিল্যান্সিং পেশায় আসতে চান না।

সেই দুর্বলতাকে কাজে লাগিয়ে তারা বলে ফ্রিল্যান্সিং করতে ইংরেজী না জানলেও চলবে , তো আমি বলব সবকিছুর পাশাপাশি এই ইংরেজি শিক্ষার কোন বিকল্প নেই, তাই আপনি আপনার ক্যারিয়ারের যাই কিছু করেন সব চর্চার পাশাপাশি ইংলিশ চর্চার চেষ্টা করবেন ,এক কথায় বলতে গেলে মুক্ত পেশায় আসতে চাইলে ইংরেজির কোন বিকল্প নেই।ছাত্রজীবনে পড়াশোনার পাশাপাশি ইংলিশটা শেখার চেষ্টা করুন। চলুন আজকের আলোচনায় যাওয়া যাক

ছাত্র জীবনে থেকে অনলাইনে আয় করার উপায়

Blogger Photo

ব্লাগার : আপনি যখন ইংলিশ মোটামুটি পারবেন তখন আপনি একটি ইংলিশ ব্লগ সাইট করতে পারেন যেখানে আপনি ইংলিশে বিভিন্ন আর্টিকেল লিখে খুব ভালো একটা ইনকাম করতে পারেন।

ইংরেজি আর্টিকেলের মার্কেট ভ্যালু অনেক বেশি।

graphic designer Photo

গ্রাফিক্স ডিজাইন : আপনার যদি সময় থাকে তাহলে আপনি ফটোশপ শিখতে পারেন। ফটোশপের সফটওয়্যার গুলো শিখলে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন এর সাথে যুক্ত হতে পারবেন।  আপনি চাইলে গ্রাফিক্সের বিভিন্ন সফটওয়্যার আছে এই সফটওয়্যার গুলো শেখার চেষ্টা করতে পারেন, সফটওয়ার গুলো আপনি যখন পড়াশোনার পাশাপাশি শিখবেন তখন দেখা যাবে যে পড়াশোনা যখন শেষ হবে , তখন আপনি একজন ভাল মানের গ্রাফিক্স ডিজাইনার হয়ে যাবেন।

 এখন দেখা যাচ্ছে আপনি ব্লগিং ও করবেন না গ্রাফিক্স ডিজাইন ও করবেন না।

 

 এসইও: আপনি যেহেতু ইংলিশটা ভালোভাবে প্যাকটিস করেছেন তাহলে আপনি এসইও শিখতে পারেন। SEO মানে ‍Search Engine Optimization। আপনি সার্চ ইঞ্জিন এর অ্যালগরিদম গুলো বুঝার চেষ্টা করুন কিভাবে একটি ওয়েবসাইট রেঙ্ক করে সে বিষয়গুলো নিয়ে পড়াশোনা করুন এবং জানতে চেষ্টা করুন, পড়াশোনার পাশাপাশি আবার পড়াশোনা করুন শেখার চেষ্টা করুন ,দেখা গেল আপনার যখন একটি কোর্স বা কারিকুলাম শেষ হবে তখন আপনি একজন ভাল মানের এসইও এক্সপার্ট হয়ে গেছেন এবং যদি আপনি জব নাও পান সে ক্ষেত্রে এই যে সাবজেক্ট গুলা যেগুলো নিয়ে আপনি পড়াশোনার পাশাপাশি শিখেছেন এগুলো আপনার কাজে দিবে ।

ওয়েব ডিজাইন: বর্তমানে প্রায় সব প্রতিষ্ঠান কিংবা ব্যাক্তিগত পোর্টফোলিও,বিভিন্ন সংগঠনের জন্য ওয়েব সাইটের প্রয়োজন পড়ে আপনি যদি একজন ভালো ডিজাইনার হন আপনার কাছে যদি ভালো আইডিয়া আপনার কোডিং করতে ভালো লাগে তাহলে আপনি ওয়েব ডিজাইন নিয়েও কাজ করতে পারেন।

product branding

প্রোডাক্ট ডেভেলপমেন্ট: এছাড়াও আরেকটি বিষয় হচ্ছে প্রোডাক্ট ডেভেলপমেন্ট রিলেটেড কাজ । পড়াশোনার পাশাপাশি আপনি চাইলে ওয়েব ডিজাইন ,ওয়েব ডেভেলপমেন্ট গ্রাফিক্স ডিজাইনিং ইত্যাদি এই যে বিষয়গুলো শিখেছেন এগুলো মার্কেটপ্লেসে বিক্রি করতে পারবেন। এই ধরনের বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে রয়েছে দুই একটা মার্কেট হলো ক্রিয়েটিভ মার্কেট, থিমফরেস্ট, কোট ক্যানন সহ এরকম আরো বিভিন্ন ধরনের মার্কেটপ্লেস রয়েছে চাইলে সেখানে আপনার প্রোডাক্ট সেল করতে পারেন ।

এর বাইরে আর কি করা যেতে পারে, এই যে আমি আর্টিকেল লিখতেছি এই আর্টিকেলটা রেকর্ড করে কোন কোর্স বা ভিডিও আকারে সাজিয়ে চাইলে আমি ইউডেমি,  স্কীল শেয়ার ,রেপ্ট সহ বিভিন্ন সাইটে সেল করতে পারি যদিও আমাদের টেক কথন ব্লগ সাইটটি বাংলায় মানুষকে বিভিন্ন টিপস-এন্ড-ট্রিকস শেয়ার করে থাকে,সেজন্য আমরা বেচা-বিক্রির মধ্যে নেই, কিন্তু আপনি যদি চান আপনি টিউটোরিয়াল তৈরি করে বিক্রি করবেন সেটা কিন্তু সম্ভব , তো সে ক্ষেত্রে আপনাদের কাছে অনুরোধ শুরু থেকেই পেইড কোন টিটোরিয়াল করাটাই ভালো হবে কারণ আগে ফ্রী লোভ দেখিয়ে মানুষকে না ঠকিয়ে সরাসরি ব্যবসা রান করা উচিত ।

photographer

ফটোগ্রাফি : এরপর আরও রয়েছে ফটো তোলার শখ রয়েছে তা  অনেকের মধ্যে দেখা যায়। এসএসসি পাস করে বাবা- মাকে পেশার দিতে থাকে, আমাকে একটি ডিএসএলআর কিনে দিতেই হবে দেখা যায় ডিএসএলআর কিনে না দিলে ফ্যামিলিতে তুলকালাম শুরু করে, এই কাজটি করা যাবে না। যদি আপনার বাবা-মায়ের অথবা আপনার সামর্থ্য থাকে আপনি একবার দুইবার বলার পরেই কিনে দিবে। কিন্তু পরিবারকে প্রেসার দিয়ে কখনোই ডিএসএলআর কিনাবার চেষ্টা করবেন না। আর আপনার যদি আগে থেকেই একটি ক্যামেরা থাকে, তাহলে সে ক্যামেরা দিয়ে চাইলে বিভিন্ন ধরনের প্রোডাক্ট ফটোগ্রাফি করতে পারেন।

আমি আপনাদেরকে বলবো না বন্ধু-বান্ধব নিয়ে ঘুরাঘুরি করে ছবি তুলে,বিভিন্ন মেয়েদের ছবি তুলে কিংবা বিয়ের প্রোগ্রাম এর ছবি তুলেন, সেই ধরনের কাজ করতে বলবো না, আমি বলব কোন একটি প্রোডাক্ট কিংবা প্রাকৃতিক পরিবেশ নিয়ে কাজ করে সেই প্রকৃতি বা প্রোডাক্টের ছবি বিক্রি করতে পারেন । যেমন আপনি কোন একটি গাছ,গাছের পাতা দেখছেন সেই গাছ ,পাতার একদম ক্লোজ শট  ‍বিভিন্ন এঙ্গেলে ছবি নিন। অথবা ম্যাক্রো ফটোগ্রাফি করতে পারেন।

যেমন ছোট ছোট অনু পদার্থগুলো যেমন ধান, শস্যদানা সেগুলোর ছবি তুলে আপনি মার্কেটপ্লেসে বিক্রি করতে পারেন। এ যে আপনি কোর্স কারিকুলাম চলা অবস্থায় পড়াশোনার পাশাপাশি এই কাজগুলো করবেন দেখা যাবে বিভিন্ন স্টক ফটোগ্রাফি মার্কেট যেমন : 123আরএফ, শাটার স্টক সহ আরো বিভিন্ন ধরনের সাইট রয়েছে ফটোগ্রাফি সেল করার জন্য এই ধরনের সাইটে ভালো একটি পোর্টফোলিও তৈরি হয়ে যাচ্ছে।

পড়ালেখার পাশাপাশি যেটা পরবর্তী জীবনে ভালো কাজ দেবে। এসব মার্কেটপ্লেসে মজার একটি ব্যাপার হচ্ছে, আপনি কোন একটি ছবি আপলোড করে রাখলেন সেটি বারবার বিক্রি হতে থাকবে,যদি ছবিটি ভাল হয় সেটি বিক্রি হতেই থাকবে। এই বিষয়গুলো আমরা চাইলে কিন্তু পড়াশোনার পাশাপাশি করতে পারি আর পড়াশোনা শেষ করার পর বিষয়গুলো নিয়ে আরও গুরুত্ব সহকারে শিখতে পারি।

আশা করি ,যারা আমার আর্টিকেলটি পড়েছেন তারা কিছুটা হলেও গাইডলাইন কিংবা ধারণা পেয়েছেন, যে পড়াশোনার পাশাপাশি কি কি কাজ করে  অনলাইনে আয় করা যায়। এ বিষয়ে আপনার যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না। আমি চেষ্টা করব সেই প্রশ্নগুলোর উত্তর দেয়ার জন্য,শেষ পর্যন্ত আমার আর্টিকেলটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ এবং আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করার অনুরোধ রইল।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on email
টেক কথন
টেক কথন

সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির - টেক কথন এ আমি ৩ বছর যাবৎ
যুক্ত আছি। এখানে আপনি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করি।
আশা করি আমাদের ওয়েবসাইটে সাথেই থাকবেন। ধন্যবাদ

আপনার পন্য বা প্রতিষ্ঠানের

নিজেকে আপডেটেড রাখতে কানেক্টেড থাকুন টেক কথন এর সাথে!

error: চোর কোথাকার! চুরি করে আর কত দিন?